আনুশকা লৌহমানবী, কোহলি লৌহমানব: শোয়েব আখতার

প্রায় তিন বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের ৭১তম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি করেছেন বিরাট কোহলি। বিশেষ এই সেঞ্চুরিটি নিজের স্ত্রী ও কন্যাকে উৎসর্গ করেছিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সেদিন মাত্র ৬১ বলে ১২ চার ও ছয় ছয়ের মারে ১২২ রান করেছিলেন তিনি।

ইনিংস ব্রেকে কোহলি জানান, খারাপ সময়ে একজন মানুষকে সবসময় কাছে পেয়েছেন তিনি। সেই মানুষটি আর কেউ নয়, তার স্ত্রী আনুশকা শর্মা। নিজের স্ত্রীকে এভাবে সম্মান দেওয়ার বিষয়টি হৃদয় ছুঁয়ে গেছে পাকিস্তানের সাবেক গতিতারকা শোয়েব আখতারের। তিনি আনুশকাকে লৌহমানবী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে শোয়েব বলেছেন, ‘ম্যাচের দিন বিরাট কোহলি বলেছে, ‘আমার সবচেয়ে বাজে সময়টাও সে দেখেছে।’ নিজের স্ত্রীর কথা বলছিল সে। আনুশকার জন্য টুপিখোলা সম্মান। দারুণ করেছো, তুমি একজন লৌহমানবী এবং সেও স্টিলের মতো শক্ত, জনাব বিরাট কোহলি।’

মাঝে প্রায় তিন বছর ও ৮৩ ইনিংসে সেঞ্চুরি না পেলেও, আফগানদের বিপক্ষে করা সেঞ্চুরির সুবাদে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ইতিহাসে এখন যৌথভাবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির মালিক কোহলি। তার সামনে এখন শুধুই স্বদেশি কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকার। যাকে ছুঁতে আরও ২৯ সেঞ্চুরি লাগবে কোহলির।

সেটি করতে না পারলেও কোহলির কৃতিত্ব কমবে না জানিয়ে শোয়েব বলেন, ‘অভিনন্দন কোহলি। এগিয়ে যেতে থাকো। তুমি দারুণ একজন মানুষ। সবসময় সত্যকে সমর্থন দিয়েছো। যে কারণে কখনও তোমার সঙ্গে খারাপ কিছু হবে। পরের ২৯ সেঞ্চুরি মানসিকভাবে চাপে রাখবে তোমাকে। তবে সবসময় ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা হিসেবেই গণ্য হবে তুমি।’

Leave a Comment