বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে এগিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে এগিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। ওয়েবমেট্রিক্স বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ৫,৯২৫ অবস্থানে থেকে অনেক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে এগিয়ে রয়েছে।

দেশের সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে এর অবস্থান ৪৩ এবং সরকারিতে ২৬তম। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্বের দুই শতাধিকেরও বেশি দেশের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো নিয়ে স্পেনের মাদ্রিদভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান ওয়েবোমেট্রিক্স ডট ইনফো’র জানুয়ারি সংস্করণে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

ওয়েবমেট্রিক্স বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের তালিকায় দেশের ১৭৩টি সরকারি –বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কলেজের মধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে যথাক্রমে ঢাবি ও বুয়েট।

বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অবস্থান ১,৬৩৪তম ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ১,৭০২তম স্থান দখল করেছে।

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরেই অবস্থান করছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেশনালস। দেশে তাদের অবস্থান ৪৭তম।বিশ্বে ৬,৯৬৫তম। এর পরে আছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। তাদের অবস্থান দেশে ৫৫তম। বিশ্বে ৮,০৩৯তম।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের অবস্থান ৫৬তম, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্বেবিদ্যালয়ের অবস্থান ৫৯তম। পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ৬৩ তম। শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজের অবস্থান ৬৭তম।বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ৬৮তম। আরও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে যাদের অবস্থান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক পরে।

এবার ঢাবি ও বুয়েটের পর শীর্ষ ১০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৩ নম্বরে রয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ২,১৮১), ৪ নম্বরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ২,৩৫৭), ৫ নম্বরে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) (বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ২,৬৬২), ৬ নম্বরে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় (বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ২,৬৬৪), ৭ নম্বরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ২,৭২১), ৮ নম্বরে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় (বিশ্ব র‌্যাংকিং ২,৭৭৩), ৯ নম্বরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ২,৮০৩), ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ১০ নম্বরে (বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ৩,১০১)।

এদিকে বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় প্রথম ১০টির মধ্যে আটটি বিশ্ববিদ্যালয় যুক্তরাষ্ট্রের। বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো: ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটন, কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয়, জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়,ইয়েল ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া সান দিয়েগো ও টরেন্টো ইউনিভার্সিটি।

ওয়েবোমেট্রিক্স ডট ইনফো’র ওয়েবসাইট অনুযায়ী র‌্যাঙ্কিং তৈরিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটের তথ্যের পাশাপাশি তাদের গবেষক এবং প্রবন্ধ বিবেচনায় নেয়া হয়।

সেক্ষেত্রে ওয়েবসাইটের তথ্য ৫০ শতাংশ, টপ সাইটেড গবেষকদের ১০ শতাংশ এবং টপ সাইটেড প্রবন্ধ ৪০ শতাংশ বিবেচনায় নিয়ে র‌্যাঙ্কিং তৈরি করে।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের র‍্যাংকিং তৈরিতে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষণ পদ্ধতি, বৈজ্ঞানিক গবেষণার প্রভাব, নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও সম্প্রসারণ, অর্থনৈতিক প্রাসঙ্গিকতা,

সাম্প্রদায়িক সন্নিবেশ অর্থাৎ সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পরিবেশগত ভূমিকা বিবেচনা করে ওয়েবমেট্রিক্স। ২০০৪ সাল থেকে ওয়েবমেট্রিক্স নিয়মিত বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাংকিং প্রকাশ করে আসছে। প্রতি বছর জানুয়ারি ও জুলাই মাসে তারা এ র‌্যাংকিং প্রকাশ করে।

About pressroom

Check Also

নিয়োগ পদ্ধতির প্যাঁচে বেকারদের গচ্চা শত কোটি টাকা

জটিল পদ্ধতির কারণে শিক্ষিত বেকারের জন্য ফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *