আন্তর্জাতিক পদার্থবিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে দেশসেরা খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়

আন্তর্জাতিক তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে অংশ নিয়ে দেশের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের ফার্মিনেফ দল। একই সাথে দলটি বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে ১৫তম স্থান অর্জন করেছে।

আন্তর্জাতিক তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান অলিম্পিয়াড হল তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান গবেষণায় আগ্রহী স্নাতক ছাত্রদের জন্য পিএইচডি ছাত্র এবং পোস্টডক্স দ্বারা পরিকল্পিত একটি প্রতিযোগিতা। এই অলিম্পিয়াডের লক্ষ্য হল তাত্ত্বিক বিজ্ঞানে আগ্রহী ব্যক্তিদের খুঁজে বের করা এবং শিক্ষার্থীদের আধুনিক গবেষণা দক্ষতার অভিজ্ঞতা অর্জন করতে সাহায্য করা।

খুবির পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন থেকে মোট ৫টি দল এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। যার মধ্যে তিনটি দল সফলতা পেয়েছে। এদের মধ্যে স্কার্মিওন দেশে দ্বিতীয় ও বিশ্বে ১৬তম এবং ফিনিক্স দেশে ৮ম ও বিশ্বে ২৩ তম স্থান অর্জন করে। দেশের মধ্যে প্রথম হওয়া ফার্মিনেফ দলের সদস্যরা হলেন- আসিফ ইকবাল, তাহসিন আহমেদ অতশী, মো. নাঈম রিফাত, মো. লাবিব হোসেন খান ও নওরিন নুরাইন।

এ বছর এ অলিম্পিয়াডে খুবির পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন থেকে ৫টি দলসহ বাংলাদেশ থেকে মোট ২৯টি দল অংশগ্রহণ করে। বিশ্বের খ্যাতনামা কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় যৌথভাবে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। এর মধ্যে ইউনিভার্সিটি অব সান্টিয়াগো দে কমপোসটেলা, স্টানফোর্ড, প্রিন্সটন, জন হপকিন্স, এমআইপিটি, ইউসিএলএ উল্লেখযোগ্য।

এদিকে আন্তর্জাতিক তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে দেশের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করায় খুবির পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের ফার্মিনেফ দলকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। এক বার্তায় তিনি চ্যাম্পিয়ন ফার্মিনেফ দলসহ সাফল্য লাভকারী অন্য দুটি দলকেও অভিনন্দন জানিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, আগামীতে তাদের এই সাফল্যের ধারা অব্যাহত থাকবে এবং আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে খুবির অবস্থান আরও সুদৃঢ় হবে।

অনুরূপভাবে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. আফরোজা পারভীন, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস, পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. রাশেদুর রহমান।

উল্লেখ্য, খুবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের গবেষণায় আগ্রহী করতে স্নাতকোত্তর (মাস্টার্স), এমফিল, পিএইচডি প্রোগ্রামে অধ্যয়নরতদের আর্থিক অনুদান দেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সূত্রঃ সমকাল

About pressroom

Check Also

নিয়োগ পদ্ধতির প্যাঁচে বেকারদের গচ্চা শত কোটি টাকা

জটিল পদ্ধতির কারণে শিক্ষিত বেকারের জন্য ফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *