রাতে সন্তান প্রসব করে সকালে পরীক্ষা দিয়ে এসএসসিতে এ+

পিরোজপুরের নাজিরপুরে রাতে সন্তান প্রসব করে সকালে পরীক্ষা কেন্দ্রে গিয়ে এসএসসি পরীক্ষা দেয়া হাসিনা আক্তার জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। সোমবার (২৮ নভেম্বর) প্রকাশিত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

হাসিনা আক্তার দুর্গাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। সে উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের ভীমকাঠী গ্রামের মো. রায়হান ফকিরের স্ত্রী।

জানা যায়, চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল হাসিনা আক্তার। পরীক্ষার আগেই সে অন্তঃসত্ত্বা হয়। এসএসসির প্রথম পরীক্ষার রাতে সে সন্তান প্রসব করে। সকালে নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষায় বসে।

জিপিএ-৫ পাওয়া হাসিনা বলে, আমি যে অবস্থায় পরীক্ষা দিয়েছি তাতে রেজাল্ট এত ভালো হবে বুঝতে পারিনি। যা হয়েছে আলহামদুলিল্লাহ। পরবর্তীতে এই ধারা যেন অব্যাহত রাখতে পারি। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।

ওই প্রসূতির মা সাজেদা বেগম জানান, তার কন্যা হাসিনা আক্তারকে গত এক বছর আগে নাজিরপুর উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের ভীমকাঠী গ্রামের চাঁন মিয়া ফকিরের ছেলে মো. রাহেন ফকিরের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে দেয়া হয়।

সাজেদা বেগম জানান, এসএসসি পরীক্ষার আগের রাতে বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) তার শ্বশুরবাড়িতে স্বাভাবিকভাবে একটি পুত্রসন্তান জন্ম নেয়। তার ডাক নাম রাখা হয় জায়ান। হাসিনা পড়ালেখার প্রতি অত্যন্ত আন্তরিক। তাই সে রাতে বাচ্চা প্রসব করেও সকালে পরীক্ষা দিতে কেন্দ্রে চলে গিয়েছিল।

দুর্গাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রতুল কুমার রায় জানান, আমাদের বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা হাসিনা অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী। সে পরীক্ষার প্রথম দিন রাতে সন্তান প্রসব করে পরের দিন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল। পরীক্ষায় সে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে। আমরা তাকে নিয়ে গর্বিত ও আনন্দিত।

Leave a Comment