দুই দশক একা থাকার পর প্রেমে পড়েছেন ৬৫ বছরের বৃদ্ধা!

প্রায় দুই দশক আগে ছেড়ে গিয়েছেন দাদা। সম্প্রতি দাদি অন্য পুরুষের প্রতি আকৃষ্ট হন। ৬৫ বছর বয়সী দাদি নতুন সঙ্গী বেছে নেয়া মেনে নিতে পারেননি বাড়ির লোক। তারা এতোই অসন্তুষ্ট যে, তার সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করতে চান। বাবা-কাকার এ হেন আচরণের জন্য সমাজমাধ্যমে তাদের এক হাত নিলেন ঐ বৃদ্ধার নাতি।

রেডিটে ইউফ্যান্সিইউজার নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে এক ব্যক্তি পুরো বিষয়টি জানান। ২২ সেপ্টেম্বর একটি রেডিট গ্রুপে ২১ বছর বয়সি ঐ ব্যক্তি জানান, তার দাদির বিবাহবিচ্ছেদ হয়েছে প্রায় দুই দশক আগে। সম্প্রতি এক ব্যক্তিকে মনে ধরে তার। কিন্তু প্রবীণার প্রণয় মেনে নিতে পারছেন না বাড়ির লোকজন। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর বাবা-কাকারা দাদির সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

বাধ্য হয়ে প্রেমিকের বাড়িতে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ঐ প্রবীণা। তাতে সমস্যা বেড়েছে আরো। লেখক জানিয়েছেন, বাড়ির অন্য কেউ মেনে নিন বা না নিন, তিনি দাদির পাশেই আছেন। ঐ ব্যক্তির দাবি, দাদা মোটেই ভালো লোক ছিলেন না। স্ত্রী-সন্তানকে ছেড়ে চলে যান। তারপর একা হাতেই সংসার সামলেছেন দাদি। তিনি শেষ বয়সে এসে যদি একজন সঙ্গী চান, তবে তার মধ্যে ভুল কিছু নেই বলেই মত ঐ ব্যক্তির।

Leave a Comment