মাকে বাঁচাতে নিজের ৩০ শতাংশ লিভার দিচ্ছেন ছেলে

মাকে বাঁচাতে নিজের ৩০ শতাংশ লিভার দিচ্ছেন ছেলে মাকে নিজের লিভারের অংশ দেবেন সদ্য ডাক্তারি পাস করা মাসুদুল করিম। দীর্ঘদিন ধরে লিভার টিউমারে ভুগছেন রুবি আক্তার (৪২)। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে বাঁচাতে প্রয়োজন লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্টের। সে অনুযায়ী ময়ের জন্য হন্য হয়ে ডোনার খুঁজছিলেন তার সদ্য ডাক্তারি পাস করা ছেলে মাসুদুল করিম। না পেয়ে অবশেষে নিজের ৩০ শতাংশ লিভার মাকে দেওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ডাক্তার মাসুদ কুমিল্লা ময়নামতি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে এমবিবিএস পাস করেছেন। বর্তমানে ওই কলেজেই ইন্টার্নি শুরু করছিলেন তিনি। তিন ভাই-বোনের মধ্যে মাসুদ সবার বড়। তারা বাবা আবদুল করিম একজন অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক। দীর্ঘদিন ধরে তিনিও ক্যানসারে আক্রান্ত।

কিছুদিন আগে তার মায়ের লিভার টিউমার ধরা পড়ে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকরা জানান, ৩০ শতাংশ লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট করতে হবে। না হয় তাকে বাঁচানোর অন্য কোনো উপায় নেই। কিন্তু বিভিন্নভাবে ডোনার খুঁজেও পাওয়া যায়নি। উপায়ন্তর না দেখে মাকে নিজের লিভার থেকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ছেলে। বর্তমানে ডা. মাসুদ তার মা রুবি আক্তারকে ভারতের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন। ওই হাসপাতালেই লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট করা হবে।

ময়নামতি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. মিজানুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, মাসুদ ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে আমাদের কলেজে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি হয়ে সদস্য প্রকাশিত ফলাফলে উত্তীর্ণ হন। চিকিৎসকদের পরামর্শে তিনি তার মাকে ২০ সেপ্টেম্বর ভারতের একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। সব কিছু ঠিক থাকলে দু-একদিনের মধ্যে তার থেকে ৩০ শতাংশ লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট করা হবে। সত্যিই মায়ের প্রতি সন্তানের এরকম অগাধ ভালোবাসা বিরল।’

এ বিষয়ে জানতে ডা. মাসুদুল করিমের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও দেশের বাইরে অবস্থান করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

Leave a Comment