নিতা আম্বানির এই ফোনের মূল্য দিয়ে একটি রাজপ্রাসাদ বানানো যাবে

দেশ তথা এশিয়ার সর্বাধিক ধনী এই ধনকুবের হলেন রিলায়েন্স গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতাসহ একাধিক বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানের মালিক। বিপুল পরিমাণে সম্পত্তির অধিকারী এই মানুষটি থাকেন মুম্বাইয়ের অ্যান্টিলা নামক প্রাসাদে। কোটি কোটি টাকার মালিক হওয়ার দরুন হামেশাই তিনি সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে অবস্থান করেন।

তার এবং তার পরিবারের বিলাসবহুল জীবন যাত্রা হামেশাই সংবাদমাধ্যমের লাইমলাইটে চলে আসে। এতক্ষণে নিশ্চয়ই বুঝে গিয়েছেন কার ব্যাপারে কথা হচ্ছে? হ্যাঁ, কথা হচ্ছে দেশের সর্বোচ্চ ধনী ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানিকে নিয়ে।

দিন কয়েক আগে পর্যন্ত তিনি ছিলেন এশিয়ার সর্বাধিক ধনী ব্যক্তি। বিশ্বের অন্যতম এই ধনকুবের বিপুল পরিমান সম্পত্তির মালিক হলেও নিজে সাধারণ ছাপোষা জীবনযাপন করতেই পছন্দ করেন। তবে তার স্ত্রী নিতা আম্বানির ক্ষেত্রে বিষয়টি সম্পূর্ণ উল্টো। সাধারণ মধ্যবিত্ত ঘরের এই মহিলা দেশবরেণ্য শিল্পপতির স্ত্রী হয়ে ওঠার পর বর্তমানে বিলাসবহুল জীবনযাপন করতেই পছন্দ করেন।

বলাবাহুল্য, একজন সফল ব্যবসায়ী মহিলা নিতা আম্বানির বিলাসবহুল জীবনযাপনের নানান টুকরো তথ্য মাঝেমধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে থাকে আর এইবার ভাইরাল হলো নিতা আম্বানির 24 ক্যারেট সোনা ও হিরে জহরত দিয়ে তৈরি মোবাইল ফোনের তথ্য। তিনি যে ফোনটি ব্যবহার করে থাকেন তার নাম “ফ্যালকন সুপারনোভা আইফোন”। ২০১৪ সালের লঞ্চ হওয়া এই আইফোনটির ভারতীয় টাকায় মূল্য ৩১১ কোটি টাকা বা ৪৮.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

সীমিত সংস্করনের এই আইফোনটিকে নীতা আম্বানির জন্য বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়েছে। ২৪ ক্যারেট সোনা ও গোলাপি সোনা দিয়ে তৈরি এই আইফোনের পেছনে বসানো রয়েছে গোলাপি রঙের একটি হীরা। জানা যায়, বিশেষ ফিচারসম্মানীন্ত এই আইফোনটি অত্যন্ত সুরক্ষিত এবং নিতা আম্বানি ব্যতীত অন্য কেউ এই আইফোনেটিকে কখনোই অ্যাক্সেস করতে পারবে না!

Leave a Comment