Breaking News

১২ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলেও স্কুল-কলেজে কমবে ক্লাস-সময়

১২ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলেও সপ্তাহের শুরুতে একদিন করে ক্লাস নেওয়া হবে। নিয়মিত সিলেবাস অনুযায়ী বিষয় কমিয়ে ৮টি ক্লাসের পরিবর্তে নেওয়া হবে চার-পাঁচটি করে ক্লাস। রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। যেহেতু দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল তাই আপাতত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে সশরীরে পাঠদান শুরু হবে। এক্ষেত্রে চলতি ও আগামী বছরের এসএসসি-এইচএসসি এবং পঞ্চম শ্রেণির পিইসি শিক্ষার্থীদের সপ্তাহের ছয়দিন ক্লাস নেওয়া হলেও বাকিদের প্রতি সপ্তাহের শুরুতে একদিন করে ক্লাস হবে।

আপাতত সিলেবাস অনুযায়ী সব ক্লাস করানো হবে না বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, নিয়মিত আধ ঘণ্টার পরিবর্তে ৪-৫ ঘণ্টায় ক্লাস নেওয়া হবে চার-পাঁচটি। একটি শ্রেণিকক্ষের শিক্ষার্থীদের দু-তিনটি ক্লাসে বসানো হবে। ডা. দীপু মনি বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে দেশের প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মনিটরিং করা হবে। প্রতিদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদন হিসেবে একটি চেক লিস্ট তৈরি করে পাঠাতে হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে সপ্তাহে একদিন এর পরিবর্তে দুদিন, এভাবে স্বাভাবিক রুটিনে পাঠদান কার্যক্রম শুরু করা হবে। শুরুতে শিক্ষার্থীদের ওপর চাপ কমাতে ক্লাসের সময় কমানোর সিদ্ধান্ত হয়।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রবেশের সময় শিক্ষার্থীদের অবশ্যই সারিবদ্ধ হয়ে মাস্ক পরে ভেতরে প্রবেশ করতে হবে বলে জানান মন্ত্রী। এছাড়া দেশের কোথাও স্কুল-কলেজে স্বাস্থ্যবিধি মানা না হলে বা কোনো ধরনের সমস্যা দেখা দিলে সেই প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে বলে জানান তিনি।

About pressroom

Check Also

সার্টিফিকেটের নাম সংশোধন (ঘরে বসেই সংশোধন করুন

সার্টিফিকেট সংশোধন অনলাইন বা অফলাইন দুইভাবে করা যায়। তবে ঝামেলা এড়াতে অনলাইনে সংশোধন করা ভালো। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *