প্রাথমিকে প্যানেল নিয়ে সর্বশেষ যা জানালো শিক্ষা অধিদপ্তর

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে কাউকে নিয়োগ দেওয়ার সুযোগ নেই বলে সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে। সুতরাং ‘প্যানেল থেকে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ করা হবে’- এমন প্ররোচনায় কোনো প্রকার অর্থ লেনদেন না করতে সবার প্রতি অনুরোধ করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। গতকাল মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো অধিদপ্তরের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘কিছু

স্বার্থান্বেষী মহল’ মাঠ পর্যায়ে ‘তথাকথিত প্যানেল’ থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের কথা বলে প্রার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করছে বলে অধিদপ্তর জানতে পেরেছে। এ ব্যাপারে সংশ্নিষ্ট সবার অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই সারাদেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের শূন্য পদে নিয়োগের জন্য

বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ওই বছরের ৩০ আগস্ট পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করা হয়। সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে ২০১৯ সালের ৩০ জুন\হপর্যন্ত সকল শূন্য\হপদ- ১৮ হাজার ১৪৭টি পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে কোনো প্যানেল করার বিষয় উল্লেখ ছিল না। ফলে এ নিয়োগে কোনো প্যানেল বা অপেক্ষমাণ তালিকা করা হয়নি।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ৩০ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দিতে গত ১৯ অক্টোবর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগকে ‘রুটিন প্রক্রিয়া’ হিসেবে বর্ণনা করে অধিদপ্তর বলেছে, ভবিষ্যতে শূন্য পদ হবে বিবেচনা করে প্যানেল করার কোনো সুযোগ নেই।

About pressroom

Check Also

সন্তান নিয়ে ক্লাসে স্কুলছাত্রী, কোলে নিয়ে ক্লাস নিলেন শিক্ষক!

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার চিনাইর আঞ্জুমান আরা উচ্চ বিদ্যালয়ে রবিবার থেকে দশম শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হয়েছে। ভিন্ন এক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *