Breaking News
Home / BCS Examination / যেভাবে সাব-ইন্সপেক্টর বা SI হবেন।

যেভাবে সাব-ইন্সপেক্টর বা SI হবেন।

এস.আই (SI) পদটি সেকেন্ড ক্লাস গেজেটেড অফিসার। সাব-ইন্সপেক্টরকে পুলিশ বাহিনীর মেরুদন্ড বলা হয়।কারণ, তারা ইনভেস্টিগেশন অফিসার হিসাবে প্রায় সকল মামলার তদন্ত করা সহ মাঠ পর্যায়ে আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ করে।

সুযোগ-সুবিধা:

১। শুরুতে প্রায় ত্রিশ হাজার টাকা

বেতন +মামলা তদন্ত ভাতা ও টিএ, ডি

এ+রেশন ও পোশাক+বিশেষ ইউনিট এর

ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ভাতা,এছাড়াও প্রতিটি ১ বছরের

মিশনে ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করা

সম্ভবনা । সাধারণত চাকরি জীবনে ৩টার

বেশি মিশন পাওয়া যায় না।

পদোন্নতি

যোগ্যতা থাকলে পদোন্নতি পেয়ে

SP/ Addl. SP/ASP পর্যন্ত হওয়ার সুযোগ

আছে।

৪। মিশন বা প্রশিক্ষনের সুবিধার্থে

বিনা খরচে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে

ভ্রমণের সুযোগ।

৫। সাধারণ মানুষ থেকে মন্ত্রী-এমপি

পর্যন্ত যোগাযোগ ও প্রত্যন্ত গ্রাম

থেকে রাষ্ট্রপতির কার্যালয় পর্যন্ত

বিচরণ করার সুযোগ।

৫। এখানে চাকরির বৈচিত্র্য আছে।

আপনি চাইলে ইউনিফর্ম পরে থানায়

ব্যস্ততম জীবন-যাপন করতে পারেন অথবা

পুলিশের অন্য ইউনিট-এ সিভিলের মতো

এসি রুমে ৯টা-৫টা পর্যন্ত অফিস করতে

পারেন।

৬।পারিবারিক ও সামাজিক

নিরাপত্তা তো আছেই ।

অসুবিধা:

১। চ্যালেঞ্জিং জব। সর্বদা বিচক্ষণ

থাকতে হয়।

২। মাঝে মাঝে চরম বিরূপ পরিবেশে

কাজ করতে হয়। আপনার সামান্য ভুলের

কারণে অপূরণীয় ক্ষতি হতে পারে।

৩। আপনি সৎ হওয়া সত্বেও, কতিপয় লোক

আপনার সমালোচনা করতে পারে।

চলুন এইবার জেনে নেই পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পরকে:

১ম ধাপ: শারীরিক পরীক্ষা

আপনার বয়স হতে হবে ১৯ থেকে ২৭ বছর এবং অবশ্যই অবিবাহিত।

পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা হতে হবে কমপক্ষে ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি, বুক স্বাভাবিক অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি, সম্প্রসারিত অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি।

নারীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা হবে কমপক্ষে ৫ ফুট ২ ইঞ্চি।এবং ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক ।

২য় ধাপ:লিখিত পরীক্ষা-২২৫মার্ক:

পরীক্ষা হয় ৩ দিন।

প্রথম দিন মনস্তাত্বিক পরীক্ষা-২৫ মার্ক

দ্বিতীয় দিন বাংলা ও ইংলিশ-১০০ মার্ক

তৃতীয় দিন গনিত ও সাধারণ জ্ঞান-১০০

মার্ক।

বাংলায় রচনা, ভাবসম্প্রসারন,

এককথায় প্রকাশ, বাগধারা ইত্যাদি

আসে। ইংলিশে paragraph, essay,

application, grammar etc থেকে প্রশ্ন হয়।

গনিত লাভ ক্ষতি, সুদ কষা,

অংশীদারি, সরল অংক

আর সাধারন জ্ঞানে সাম্প্রতিক বিশ্ব নিয়ে প্রস্ন করা হয় ।

৩য় ধাপ: ভাইভা-১০০ মার্ক।

৪র্থ ধাপ: মেডিকেল টেস্ট ও

ভেরিফিকেশন।

সকল পরীক্ষা সফলতার সহিত পাস করলে

প্রশিক্ষণ ও নিয়োগের জন্য

চূড়ান্তভাবে মনোনীত হবেন।

চাকরি পাওয়ার জন্য অবশ্যই

কারো সাথে যোগাযোগ করবেন

না। পুলিশের চাকরি বিনা টাকায়

হয় না, এটা সম্পুর্ন মিথ্যা কথা।

চাকরি বিনা টাকায় হবে যদি

আপনি যোগ্য হয়ে থাকেন।

পরিশেষে, মনে রাখতে হবে আপনার

তদন্তের উপর একজন নিরপরাধ/অপরাধীর

জীবন/মরন নির্ভর করবে।

প্রত্যক্ষভাবে জনসেবা করা, চ্যালেঞ্জ গ্রহণের সৎ

মন-মানসিকতা এবং সু-শৃংখলভাবে

জীবন-যাপন করতে চাইলে বাংলাদেশ

পুলিশে আপনাকে স্বাগতম ।

About pressroom

Check Also

মেডিকেলে চান্স পেলেন রিকশাচালক বাবার দুই জমজ ছেলে

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার এক অটোরিকশা চালকের যমজ দুই ছেলে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। তারা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by keepvid themefull earn money