Breaking News
Home / BCS Examination / বিনামূল্যে বিসিএসের কোচিং

বিনামূল্যে বিসিএসের কোচিং

বিসিএসসহ বিভিন্ন ধরনের চাকরিপ্রার্থীদের জন্য শুরু হচ্ছে ‘মার্চ ফরোয়ার্ড ফ্রি কোচিং ফর বিসিএস অ্যান্ড আদার্স’ নামক কার্যক্রম। ফেসবুকভিত্তিক বেসরকারি সংগঠন পে ইট ফরোয়ার্ড, বাংলাদেশের উদ্যোগ এটি। এ কার্যক্রমের খরচ বহন করবেন সংগঠনের সদস্যরা। এতে সহায়তা করবে পে ইট ফরোয়ার্ডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ‘অনেস্ট’।

বর্তমানে বিভিন্ন ব্যাচে কোচিংয়ের জন্য রেজিস্ট্রেশন চলছে। এই লিংকে গিয়ে প্রার্থীরা নাম রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। অনলাইনের মাধ্যমে এ কোচিংয়ের ক্লাস শুরু হবে ২ সেপ্টেম্বর থেকে। সপ্তাহে পাঁচদিন সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত ক্লাস হবে। রেজিস্ট্রেশন করা প্রার্থীদের পাসওয়ার্ড দেওয়া থাকবে, কেউ ক্লাসে উপস্থিত থাকতে না পারলেও ওই দিনের শিক্ষা উপকরণগুলো পিডিএফ ফাইলে সংগ্রহ করতে পারবেন।

ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে ক্লাসগুলো পরিচালনা করা হবে। অনলাইনেই ক্লাস হবে। শুধু শেষ পর্যায়ে বাছাই করা প্রার্থীদের স্বল্প সময়ের জন্য সংগঠনের খরচে ইন হাইজ (আবাসিক) কোর্স করানো হবে। শিক্ষা উপকরণ (রিডিং ম্যাটেরিয়াল) যেদিন ক্লাস, সেদিনই পিডিএফ ফাইল বানিয়ে শিক্ষার্থীদের সরবরাহ করা হবে। এর জন্য কোনো দাম নেওয়া হবে না।

সংগঠনটি প্রতিষ্ঠাতা ও চট্টগ্রামের কর কমিশনার বাদল সৈয়দ বলেন, প্রতিযোগিতামূলক চাকরির বাজারে টিকে থাকার জন্য কোচিংয়ের পেছনে চাকরিপ্রার্থীদের মাসে হাজার হাজার টাকা খরচ হচ্ছে। অনলাইনে এ ধরনের উদ্যোগের ফলে প্রার্থীদের এ খাতে খরচ এবং সময়—দুটোই কমানো সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, কোচিং করতে ইচ্ছুকদের কাছ থেকে প্রতিমাসে মাত্র ১০০ টাকা করে নেওয়া হবে। যাঁরা দিতে পারবেন না, তাঁদের কাছ থেকে এ টাকাও নেওয়া হবে না।

জানা গেছে, প্রতিজন মাসে ১০০ টাকা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। ৪১তম বিসিএস পূর্ণাঙ্গ কোর্সের জন্য রেজিস্ট্রেশন ফি ৫০০ টাকা। মাসে ১০০ টাকা/কোর্সে ৫০০ টাকা যেভাবে ইচ্ছে একসাথে প্রদান করা যাবে। ৪২তম বিসিএস প্রার্থীরা প্রতি মাসে ১০০ টাকা/পূর্ণাঙ্গ কোর্সে একসাথে ১০০০ টাকা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। ৪৩তম বিসিএস প্রার্থীরা প্রতি মাসে ১০০ টাকা/পূর্ণাঙ্গ কোর্সে একসাথে ১০০০ টাকা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে।

দেশীয় বিভিন্ন বিশিষ্ট আইটি উদ্যোক্তা বিনা মূল্যে শিক্ষামূলক অ্যাপ তৈরিসহ বিভিন্ন বিষয়ে সহায়তা দিচ্ছেন। আনলিমিটেড প্রার্থীকে অনলাইন ক্লাসে যুক্ত করার পাশাপাশি ইচ্ছেমতো পরীক্ষার শিডিউল তৈরি, প্রশ্নপত্র তৈরি করা যাবে। অ্যাপটিতে প্রায় ৩০ হাজার প্রশ্নের একটি ব্যাংক তৈরি করা আছে। এটা আরও বাড়ানো যাবে।

সংগঠনটি প্রতিষ্ঠাতা বাদল সৈয়দ বলেন, কোচিংয়ের জন্য পুরো কার্যক্রমকে সাজাতে সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রথম ছয় মাসে খরচ করতে হবে ৩৬ লাখ টাকা। এরপরের ছয় মাসে খরচ কিছুটা কমে ১৮ লাখে নামবে। শিক্ষক এবং কোচিং কার্যক্রমে বিভিন্নভাবে যুক্তরা প্রথম ছয় মাস কোনো সম্মানী না নিলেও পরে সম্মানীর ব্যবস্থা করা হবে। কেননা এই কর্মযজ্ঞের পেছনে সবাইকে প্রচুর শ্রম ও সময় দিতে হচ্ছে।

About pressroom

Check Also

পরীক্ষার প্রশ্নে ভুল থাকলে বা অপশনে সঠিক উত্তর না থাকলে কী করবেন? জেনে নিন

১। অপশনে সঠিক উত্তর না থাকলে সবচেয়ে প্রচলিত উত্তরটিই করে আসবেন। যেমন প্রশ্নে উল্লেখ করা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Powered by keepvid themefull earn money