বাংলা ব্লগারে আপনাকে স্বাগতম, সবার আগে সঠিক তথ্য পেতে আমাদের সাথে থাকুন সব সময়। আমাদের বেশির ভাব তথ্য বিশ্লেষন করে তারপর উপস্থাপন করা হয়। শতভাগ তথ্য অনলাইন থেকে সংগ্রহ করে বিশ্লেষনের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়। আপনি চাইলে যে কোন তথ্য আমাদের কাছেও পাঠাতে পারেন।
তো চলুন আজকের বিষয়’টি নিয়ে পড়ে নেওয়া যাক….

আবারও বিতর্কের ঝড় ওঠে। যদিও জীবনে বহু নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছেন মহেশ। শোনা যায়, কলেজজীবনে লোরিয়েন ব্রাইট নামে এক নারীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে মহেশের। পরবর্তীকালে মহেশ ভাট ওই নারীর নাম পরিবর্তন করে রাখেন কিরণ। এই কিরণই মহেশের সন্তানই পূজা ভাট এবং রাহুল ভাটের মা।

কিরণের সঙ্গে বিবাহিত জীবনযাপনের সময়েই অভিনেত্রী পারভিন বাবির সঙ্গে প্রেমসম্পর্ক শুরু হয় মহেশের। এ কারণেই কিরণের কাছ থেকে দূরে সরে আসেন মহেশ। কিন্তু পারভিনের সঙ্গে মহেশের সম্পর্কও দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। পারভিন আর মহেশের মধ্যেও কালক্রমে তৈরি হয় দূরত্ব।

এর পর সোনি রাজদানের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন মহেশ। জন্মগতভাবে হিন্দু হলেও সোনিকে বিয়ে করবেন বলে ইসলাম ধর্মে দীক্ষিত হন তিনি। আলিয়া ভাট ও শাহিন ভাট সোনি রাজদানেরই কন্যা।

এদিকে করণ জহরের টক শো- ‘কফি উইথ করণ’-এ হাজির হয়েছিলেন আলিয়া। তাকে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিতে হয় তখন। আলিয়াকে জড়িয়ে যে গুজবগুলি রয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম কোনটি বলে প্রশ্ন করা হয় মহেশ ভাট কন্যাকে। করণের প্রশ্নের উত্তরে আলিয়া বলেন, মহেশ ভাট এবং পূজা ভাটের মেয়ে বলে যখন লোকে তার সম্পর্কে সমালোচনা করে, তখন সেটা শুনতে তার অবাক লাগে।

সূত্র : জি নিউজ

News Reporter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *